বালৃুরপাড় রিয়েল এস্টেট (ব্লগ)

জমি সংক্রান্ত আইন ও সমস্যর সমাধান এখানেই

জমি বেদখল হলে করনীয়

জমি বেদখল হলে করনীয়

যদি কোনো ব্যক্তি তার দখলকৃত জমি হতে হঠাত্‍ করে বেদখল হয়ে যান কিংবা কোনো ব্যক্তি তাকে জোড় পূর্বক ভাবে বেদখল করে তাহলে জমি হতে বেদখল হওয়ার পর তাকে   প্রথমে গ্রাম্য প্রধান  মুরুব্বীদের শরনাপন্ন হওয়া আথবা দেওয়ানী অথবা ফৌজদারী আদালতে মামলা করতে হবে।প্রকাশ থাকে যে এ ধরনের মামলা সাধারণত বেদখল হওয়ার তারিখ হতে ২ মাসের  মধ্যে সাধারনত শেষ হয়ে যায় ।

যেখানে আপনি মামলা দায়ের করবেন

আপনি যে এলাকার বাসিন্দা সে এলাকার এখতিয়ার বা আদালতের নির্দিষ্ট অঞ্চলের জন্য নিয়োজিত ১ম শ্রেণীর ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে মামলা করতে হবে। উল্লেখ থাকে যে জমি হতে বেদখল হওয়ার আশংকা থাকলেও আশংকার তারিখ হতে ২ মাসের মধ্যে ১ম শ্রেণীর ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে উপরোক্ত ধারায় মামলা করা যাবে।
১৮৭৭ সালের দেওয়ানী আদালতে সুনিদিষ্ট প্রতিকার আইনের ৯ ধা্রা মতে

প্রকাশ থাকে যে , যদি কোনো ব্যক্তি তার দখলকৃত জমি হতে হঠাত্‍ করে বেদখল হয়ে যান কিংবা কোনো ব্যক্তিকে জোড় পূর্বকভাবে বেদখল করা হয় তাহলে জমি হতে বেদখল হওয়া ব্যক্তি বেদখল হওয়ার পর দেওয়ানী আদালতে মামলা করতে হবে। বেদখল হওয়ার তারিখ হতে ৬ মাসের মধ্যে

সম্পত্তির পরিমান অনুসারে যেখানে মামলা করবেন

 

১। বেদখল সম্পত্তির মূল্য যদি ২ লাখ টাকা পর্যন্ত হয় তাহলে জমিটি যে এলাকায় অবস্থিত সেই এলাকার সহকারী  জজের নিকট মামলা দায়ের করতে হবে।

২। বেদখল সম্পত্তির মূল্য যদি ২ লাখ ১ টাকা থেকে ৪ লাখ টাকা পর্যন্ত হয় তাহলে জমিটি যে এলাকায় অবস্থিত সেই এলাকার সিনিয়র সহকারী জজের নিকট মামলা দায়ের করতে হবে।

৩। বেদখল সম্পত্তির মূল্য যদি  ৪ লাখ ১ টাকা থেকে ৫ লাখ টাকা পর্যন্ত হয় তাহলে জমিটি যে এলাকায় অবস্থিত সেই এলাকার যুগ্ন জেলা জজের নিকট মামলা দায়ের করতে হবে।

৪। বেদখল সম্পত্তির মূল্য যদি ৫ লক্ষ ১ টাকা থেকে অসীম পর্যন্ত হয় তাহলে জমিটি যে এলাকায় অবস্থিত সেই এলাকার জেলা জজ অথবা অতিরিক্ত জেলা জজের নিকট মামলা দায়ের করতে হবে।

প্রকাশ থাকে যে দেওয়ানী আদালতে ১৮৭৭ সালের সুনিদিষ্ট প্রতিকার আইনের এবং ৪২ ধারা অনুযায়ীযদি কোনো ব্যক্তি তার দখলকৃত জমি হতে বেদখল হয়ে যায় এবং ঐ বেদখল হওয়া

জমিটিতে তার মালিকানা থাকে তাহলে ঐ জমিটিতে দখল ফিরে পাবার জন্য বেদখল হওয়ার পর এখতিয়ার ভুক্ত দেওয়ানী আদালতে মামলা দায়ের করতে হবে। তবে বেদখল হওয়ার তারিখ হতে ১২ বছরের মধ্যে মামলা করতে

হবে।

Please follow and like us:

Leave a Reply

Your email address will not be published.