বালৃুরপাড় রিয়েল এস্টেট (ব্লগ)

জমি সংক্রান্ত আইন ও সমস্যর সমাধান এখানেই

ফটোগ্রাফির দ্বারা দলিল নকল করা সম্পর্কিত

ফটোগ্রাফির দ্বারা দলিল নকল করা সম্পর্কিত
ধারা-৭০-ক (অত্র খন্ডের প্রয়োগ)
    কেবল ৭০-ঘ ধারা অনুসারে প্রচারিত বিজ্ঞপ্তিতে নির্দিষ্ট এলাকাসমূহে অত্র ধারা প্রযুক্ত হইবে ।
ধারা-৭০-খ (সংজ্ঞাসমূহ)
    অত্র খণ্ডের প্রয়োজনে ‘ফটো-রেজিস্ট্রার’ বলিতে অত্র খণ্ডের বিধান অনুসারে নিযুক্ত ফটো রেজিস্ট্রারকে বুঝাইবে ।
ধারা-৭০-গ (ফটো-রেজিস্ট্রারগণের নিয়োগ)
সরকার অত্র খণ্ডের বিধান অনুসারে কর্তব্য পালনের জন্য কোনো রেজিস্ট্রার, সাব-রেজিস্ট্রার বা অপর কোনো ব্যক্তিকে ফটো-রেজিস্ট্রার নিযুক্ত করিতে পারিবেন ।
তবে শর্ত থাকে যে, সরকার উপযুক্ত শর্ত বা নিয়ন্ত্রণাধীন ফটো-রেজিস্ট্রার নিয়োগের ক্ষমতা রেজিস্ট্রিকরণের ইন্সপেক্টর জেনারেলের নিকট হস্তান্তরিত করিতে পারিবেন ।
ধারা-৭০-ঘ (ক) সরকার কতৃর্ক বিজ্ঞাপ্তিত এলাকাসমূহে দলিলের ফটোগ্রাফ লওয়া যাইবে


    (১) সরকার গেজেটে বিজ্ঞপ্তি প্রচারের মাধ্যমে নির্দেশ দিতে পারিবেন যে, বিজ্ঞপ্তিতে নির্দিষ্ট কোনো জিলায় বা উপজিলায় অত্র আইন অনুসারে রেজিস্ট্রিকরণের জন্য গৃহীত দলিলসমূহের নকল ফটো-গ্রাফি দ্বারা করিতে হইবে ।
    (২) উত্তরূপ বিজ্ঞপ্তি প্রদত্ত হইবার পর ইংরেজিতে প্রদত্ত হইয়া থাকিলে তাহা বাংলায় অনুবাদ করিতে হইবে এবং বিজ্ঞপ্তির আওতাভূক্ত রেজিস্ট্রি অফিসারসমূহের প্রকাশ্য স্থানে তাহা সাটিয়া দিতে হইবে ।
    (খ) অতঃপর রেজিস্ট্রিকারী অফিসার স্বয়ং ফটো রেজিস্ট্রার না হইলে তিনি উহা ফটো রেজিস্ট্রারের নিকট প্রেরণ করিবেন এবং রেজিস্ট্রিকারী অফিসার বা ফটো রেজিস্ট্রার যে ক্ষেত্রে যিনি কাজ করিবেন, তিনি উক্ত দলিলে প্রত্যেক পৃষ্ঠার প্রত্যেক পার্র্শ্ব উহার নকল স্ট্যাম্প, পৃষ্ঠাঙ্কন, সীলমোহর, তদন্ত, টিপসহি ও উহাতে প্রদত্ত সার্টিফিকেটসহ কোনো অংশ বাদ না দিয়া বা কোনো পরিবর্তন না করিয়া ফটো গ্রহণ করিবেন । এই উদ্দেশ্যে তিনি দলিলটির বিভিন্ন পাতা পৃথক করার জন্য যে ফিতা বা সূতা দিয়া পাতাগুলি গ্রথিত হইয়াছে, সীলমোহর নষ্ট না করিয়া তাহা খুলিতে বা কাটিতে পারিবেন এবং দলিলটির ফটোগ্রাফ গৃহীত হইবামাত্র তিনি যতদুর সম্ভব দলিলটি পূর্বের ন্যায় পুনঃগ্রথিত করিবেন এবং তিনি যদি সূতা বা ফিতা কাটিয়া থাকেন তবে উহার গ্রন্থির উপর নিজের সীলমোহর দিবেন ।
 আরও শর্ত থাকে এই যে, দলিল দাখিলকারী পক্ষ অনুরোধ করিলে দলিলটি অ-গ্রথিত অবস্থায় থাকিতে দিতে হইবেঃ
    আরও শর্ত থাকে যে, দলিলটি ফটো-রেজিস্ট্রারের নিকট পাঠাইবার পূর্বে বা পরে দলিল দাখিলকারক ৫২ ধারা অনুসারে দলিলটি নকল করাইবার জন্য রেজিস্ট্রিকারী অফিসারকে বলিতে পারিবেন, অথবা দলিলটি যদি ১৯ ধারা অনুসারে রেজিস্ট্রির জন্য দাখিল করা হইয়া থাকে, তবে ৬২ ধারা অনুসারে উহার অনুবাদ নকল করাইতে বলিতে পারিবে এবং তজ্জন্য অতিরিক্ত নকল খরচা প্রদান করিবেন ।
ধারা-৭০-ঙ (৭০-ঘ ধারা অনুসারে বিজ্ঞপ্তিতে এলাকাসমূহে অত্র আইনে প্রয়োগ)
৭০-ঘ ধারা অনুসারে বিজ্ঞাপ্তিত কোনো জিলায় বা উপজিলায় অত্র আইনের বিধানসমূহ অত্র খণ্ডের প্রয়োজন নিম্নরূপে সংশোধিত আকারে প্রযোজ্য হইবে, যথা :
(১) (ক) ৩৫ বা ৪১ ধারা অনুসারে রেজিস্ট্রেশনের জন্য গৃহীত প্রত্যেকটি দলিলের প্রত্যেক পৃষ্ঠায়-
(এক) দলিল দাখিলকারী ব্যক্তি বা দাখিলকারী ব্যক্তিদের মধ্যে যে কোনো একজন রেজিস্ট্রিকারী অফিসারের সম্মুখে স্বাক্ষর করিবে; এবং
(দুই) যত্ন সহকারে একটি সনাক্তিকরণ স্ট্যাম্প দিতে হইবে ও দলিলের ক্রমিক নম্বর দিতে হইবে ।
(খ) উক্ত মুদ্রিত ফটোগুলির এক প্রস্থ ক্রমিক নম্বর অনুসারে সাজাইতে হইবে এবং পুস্তাকারে সেলাই বা বাঁধাই করিতে হইবে । এইরূপ প্রত্যেকটি বহিতে রেজিস্ট্রার বা সাব-রেজিস্ট্রার উহার অন্তর্ভূক্ত ক্রমিক নম্বরগুলি সম্পর্কে একটি সার্টিফিকেট প্রাক-সংযোজিত করিবেন এবং বহিগুলি সাব-রেজিস্ট্রারের নথিপত্রের সহিত সংরক্ষিত হইবে । নেগেটিভসমূহ ইন্সপেক্টর জেনারেল যেরূপ উপযুক্ত বলিয়া নির্ধারণ করেন সেইরূপ স্থানে সংরক্ষিত হইবে ।
(গ) অতঃপর নেগেটিভ এবং কমপক্ষে একটি মুদ্রিত ফটোগ্রাফ প্রস্তুত করিতে হইবে ও তাহা সংরক্ষণ করিতে হইবে এবং উক্তরূপ নেগেটিভ ও মুদ্রিত ফটোগ্রাফ ঐ গুলি যে রেজিস্ট্রিকরণের জন্য গৃহীত মূল দলিলের অবিকল প্রতিলিপি উহার চিহ্নস্বরূপ তাঁহার দস্তগত ও সীলমোহর দিবেন ।
    তবে এই যে, যখন একটি দীর্ঘ ফিল্মের উক্তরূপ একাধিক নিগেটিভ প্রস্তুত করা হয় এবং ফটো-রেজিস্ট্রার যথানির্দিষ্ট নিয়মে এই মর্মে সার্টিফিকেট প্রদান হিসাবে যদি উক্ত ফিল্মের শেষ প্রান্তে স্বাক্ষর ও সীলমোহর প্রদান করেন যে উহা মূল দলিলের অবিকল প্রতিলিপি, তবে ফটো-রেজিস্ট্রার প্রত্যেকটি নিগেটিভ ও ফিল্মের উপর স্বাক্ষর ও সীল দিয়াছেন বলিয়া বিবেচিত হইবে
ধারা-৭০-চ ( ইন্সপেক্টর জেনারেল কতৃর্ক নিয়মাবলী প্রণয়নের ক্ষমতা)
(১) অত্র খণ্ডের বিধানসমূহ কার্যকরী করার জন্য ইন্সপেক্টর জেনারেল পূর্বাহ্নে সরকারের অনুমতি লইয়া সরকারি গেজেটে বিজ্ঞপ্তি প্রচারের মাধ্যমে নিয়মাবলী প্রণয়ণ করিতে পারিবেন ।

 

আপনিকি ঢাকায় প্লট/ফ্ল্যাট/জমি ক্রয়ের কথা ভাবছেন? আপনার পছন্দের প্লট/ফ্ল্যাট/জমিটি আমাদের কাছেই আছে।

(২) অত্র আইনে হাতে দলিলপত্রের নকল প্রস্তুত করা অথবা দলিলের বিষয়বস্তু বা স্মারক ১৬ ধারা অনুসারে রক্ষিত বহিতে লিপিবদ্ধ করা সম্পর্কে অত্র আইনে যে সকল শব্দ ও বাক্যাংশ ব্যবহার করা হইয়াছে, উহার সমস্তই প্রয়োজনমত ফটোগ্রাফির সাহায্যে দলিলের নকল প্রস্তুত বা ফটোগ্রাফির দ্বারা প্রস্তুত দলেলে নকল স্মারক নথিবদ্ধ করা বা সেইগুলি বহি আকারে রাখাও বুঝাইবে ।

(৩) যে-ক্ষেত্রে আইনের অত্র খণ্ড প্রযোজ্য হইবে সেই ক্ষেত্রে নিম্নলিখিত ধারাগুলি নিম্নলিখিতরূপে সংশোধিত বলিয়া বিবেচিত হইবে :
    (ক) ১৯ ধারায় ”এবং একটি অবিকল নকলের দ্বারা” কথাগুলি বাদ দিতে হইবে;
    (খ) ২১ ধারায় (৪) উপধারা বাদ দিতে হইবে;
    (গ) ৫২ ধারার (১) উপধারার (গ) অনুচ্ছেদে ”গৃহীত হইবার ক্রমানুসারে” কথাগুলি বাদ দিতে হইবে;
    (ঘ) ৫৩ ধারা বাদ দিতে হইবে;
    (ঙ) ৬ ধারার (১) উপধারার ”এবং পৃষ্ঠা” কথাগুলি বাদ দিতে হইবে৷
    (চ) ৬১ ধারার (১) উপধারা বাদ দিতে হইবে; এবং
    (ছ) ৬২ ধারার (১) উপধারার-
    (এক) ”প্রতিলিপিকৃত” কথাটির স্থলে ”নকলকৃত” কথাটি বসিবে;
    (দুই) ”১৯ ধারায় উল্লিখিত” অংক ও কথার স্থলে ”মূল দলিলের ফটোগ্রাফ কথাগুলি বসিবে ।
তথ্যসুত্র : রেজিস্ট্রেশন অাইনের ভাষ্য , লেখক- গাজী শামসুর রহমান।
Please follow and like us:

Leave a Reply

Your email address will not be published.