বালৃুরপাড় রিয়েল এস্টেট (ব্লগ)

জমি সংক্রান্ত আইন ও সমস্যর সমাধান এখানেই

রেজিস্ট্রিকারী অফিসারের কর্তব্য ও ক্ষমতা সম্পর্কিত(পর্ব তিন)

ধারা-৫৯ (পৃষ্ঠাঙ্কনে রেজিস্ট্রিকারী অফিসার কতৃর্ক তারিখ ও দস্তখত প্রদান করিতে হইবে)
উক্তরুপ দলিল সম্পর্কে রেজিস্ট্রিকারী অফিসারের উপস্থিতিতে ৫২ ও ৫৮ ধারা অনুযায়ী যাহা কিছু লিপিবদ্ধ করা হইবে, রেজিস্ট্রিকারী অফিসার সেই দিনই সেইগুলিতে তাঁহার স্বাক্ষর ও তারিখ প্রদান করিবেন ।
ধারা -৬০ (রেজিস্ট্রিকরণের সার্টিফিকেট )
উপধারা-(১) রেজিস্ট্রিকরণের জন্য দাখিলকৃত কোনো দলিলের ৩৪, ৫৮ ও ৫৯ ধারার সেই সমস্ত শর্ত প্রযোজ্য হইবে; উহা পালন করা হইলে রেজিস্ট্রিকারী অফিসার উক্ত দলিলের উপর রেজিস্ট্রিকৃত শব্দ সম্বলিত একটি সার্টিফিকেট লিখিবেন এবং ঐ সঙ্গে যে বহিতে উক্ত দলিলের নকল রাখা হইয়াছে উক্ত বহি এবং উহার পৃষ্ঠার নম্বর লিখিয়া রাখিবেন ।
উপধারা-(২) ঐরূপ সার্টিফিকেট, রেজিস্ট্রিকারী অফিসার কতৃর্ক সহি, সীলমোহর এবং তারিখ যুক্ত হইলে সংশ্লিষ্ট দলিল যে এই আইনের নির্ধারিত পদ্ধতি অনুযায়ী রেজিস্ট্রিকৃত হইয়াছে এবং ৫৯ ধারায় উল্লেখিত পৃষ্ঠাঙ্কনের প্রয়োজনীয় বিষয়সমূহ যে উহাতে আছে, তাহা প্রমাণের জন্য গৃহীত হইবে ।
ধারা-৬১ (পৃষ্ঠাঙ্কন ও সাটিফিকেটের নকল রাখিয়া দলিল ফেরত দিতে হইবে)


উপধারা-(১) অতঃপর ৫৯ এবং ৬০ ধারায় বর্ণিত পৃষ্ঠাঙ্কন ও সার্টিফিকেটের নকল রেজিস্ট্রার বহির প্রান্তদেশে লিপিবদ্ধ রাখিতে হইবে এবং ২১ ধারায় বর্ণিত কোনো নকশা বা পরিকল্পনা থাকিলে উহার নকল ১নং বহিতে নথিভূক্ত হইবে ।
উপধারা-(২) অতঃপর দলিল রেজিস্ট্রি সম্পূর্ণ হইল বলিয়া ধরা হইবে এবং তখন রেজিস্ট্রিকরণের জন্য দাখিলকারী ব্যক্তি অথবা ৫২ ধারায় বর্ণিত রশিদে এই মর্মে লিখিতভাবে মনোনীত ব্যক্তিকে দলিল ফেরত দেওয়া হইবে ।
ধারা-৬২ (রেজিস্ট্রিকারী অফিসারের অজ্ঞাত ভাষায় লিখিত দলিল দাখিলের পরবর্তী পদ্ধতি )
উপধারা-(১) ১৯ ধারা অনুযায়ী কোনো দলিল রেজিস্ট্রিকরণের জন্য দাখিল করা হইলে মূল দলিলের হুবহু অনুবাদ দলিল-পত্রাদির রেজিস্ট্রারে লিপিবদ্ধ করিতে হইবে এবং ১০ ধারায় উল্লিখিত একটি নকল রেজিস্ট্রি অফিসের নথিভূক্ত করিতে হইবে ।
উপধারা-(২) মূল দলিলের উপর যথাক্রমে ৫৯ এবং ৬০ ধারায় উল্লিখিত পৃষ্ঠাঙ্কন এবং সার্টিফিকেট লিখিয়া রাখিতে হইবে এবং ৫৭, ৬৪, ৬৫, ৬৬ ধারা মতে নকল এবং স্মারকলিপি প্রস্তুত করিবার উদ্দেশ্যে দলিলের অনুবাদকেই মূল দলিল হিসাবে গণ্য করা হইবে ।
ধারা-৬৩ (শপথদান ও বিবৃতির সারমর্ম লিপিবদ্ধ করার ক্ষমতা)
শপথদান ও বিবৃতির সারমর্ম লিপিবদ্ধ করার ক্ষমতা :
উপধারা-(১) প্রত্যেক রেজিস্ট্রিকারী অফিসার ইচ্ছা করিলে এই আইন অনুযায়ী যাহার জবানবন্দি গ্রহণ করা হইবে এইরূপ কোনো ব্যক্তিকে শপথ গ্রহণ করাইতে পারেন ।
উপধারা-(২) ঐরূপ প্রত্যেক অফিসার ইচ্ছা করিলে ঐরূপ প্রত্যেক ব্যক্তি কতৃর্ক প্রদত্ত বিবৃতির সারমর্মের ‘লিপি’ রাখিবেন এবং উক্ত লিপি বিবৃতি প্রদানকারীর সম্মুখে পাঠাইতে হইলে অথবা (বিবৃতিটি যদি তাঁহার অজানা কোনো ভাষায় লিপিবদ্ধ হয়) তাঁহার জ্ঞাত ভাষায় ব্যাখ্যা করিয়া দেওয়া হইলে তিনি যদি উহার যথার্থতা স্বীকার করেন, তবে রেজিস্ট্রিকারী অফিসার উহাতে দস্তখত করিবেন ।
উপধারা-(৩) বিবৃতি যেই অবস্থায় এবং যেই ব্যক্তি কতৃর্ক প্রদত্ত হইয়াছে, উপরোক্ত প্রকারের দস্তখতযুক্ত লিপি তাহা প্রমাণের জন্য গ্রহণযোগ্য হইবে ।
ধারা-৬৪ (বিভিন্ন উপজিলায় অবস্থিত জমির দলিল-সম্পর্কিত পদ্ধতি)
প্রত্যেক সাব-রেজিস্ট্রার তাঁহার উপজিলায় পুরাপুরি ভাবে অবস্থিত নয় এইরূপ কোনো স্থাবর সম্পত্তি সম্পর্কে উইল ছাড়া অন্য কোনো প্রকার দলিল রেজিস্ট্রিকরণকালে তিনি উক্ত দলিলের এবং দলিলে লিখিত কোনো পৃষ্ঠাঙ্কন বা সার্টিফিকেটের (যদি থাকে) একটি স্মারকলিপি প্রস্তুত করিয়া তাহারই মত একই রেজিস্ট্রারের অধীনস্থ অন্যান্য সাব-রেজিস্ট্রারের উপজিলায় উক্ত সম্পত্তির কোনো অংশে অবস্থিত হইলে তাহাদের নিকট প্রেরণ করিবেন এবং উক্ত সাব-রেজিস্ট্রারগণ ১নং বহিতে ঐ স্মারকলিপি নথিযুক্ত করিবেন ।
ধারা-৬৫ (বিভিন্ন জিলায় অবস্থিত জমির দলিল-সম্পর্কিত পদ্ধতি)
উপধারা-(১) প্রত্যেক সাব-রেজিস্ট্রার একাধিক জিলায় অবস্থিত এইরূপ কোনো স্থাবর সম্পত্তি সম্পর্কে উইল ছাড়া অন্য কোনো প্রকার দলিল রেজিস্ট্রকরণকালে তিনি উক্ত দলিলের এবং দলিলে লিখিত কোনো প্রকার পৃষ্ঠাঙ্কন বা সার্টিফিকেটের (যদি থাকে) নকলের সহিত ২১ ধারায় বর্ণিত কোনো নকশা বা পরিকল্পনার (যদি থাকে) নকল তাঁহার নিজের উপজিলা যেই জিলার অন্তর্গত সেই জিলা ব্যতীত উক্ত সম্পত্তির অংশ অন্যান্য যেই জিলায় অবস্থিত সেই জিলার সাব-রেজিস্ট্রারদের নিকট প্রেরণ করিবেন ।

আপনিকি ঢাকায় প্লট/ফ্ল্যাট/জমি ক্রয়ের কথা ভাবছেন? আপনার পছন্দের প্লট/ফ্ল্যাট/জমিটি আমাদের কাছেই আছে।

উপধারা-(২) উপরোক্ত নকলাদি পাওয়ার পর রেজিস্ট্রার উহা ১ নং বহিতে নথিভুক্ত করিবেন এবং উক্ত দলিলের এক একটি স্মারকলিপি তাঁহার এলাকাধীন যেই সমস্ত উপজিলায় সম্পত্তির কোনো অংশ অবস্থিত উহার সাব-রেজিস্ট্রারদের নিকট প্রেরণ করিবেন এবং প্রত্যেক সাব-রেজিস্ট্রার উক্ত স্মারকলিপি প্রাপ্ত হইয়া তাঁহার অফিসের ১নং বহিতে নথিভূক্ত করিবেন ।
ধারা-৬৬ (জমি সম্পর্কিত দলিল রেজিস্ট্রিকরণের পরবর্তী পদ্ধতি)
উপধারা-(১) যখন কোনো রেজিস্ট্রার স্থাবর সম্পত্তি সম্পর্কে উইল ছাড়া অন্য কোনো প্রকার দলিল রেজিস্ট্রি করেন তখন তাহাঁর অধীনস্থ প্রত্যেক সাব-রেজিস্ট্রারের নিকট যাহার উপজিলায় উক্ত সম্পত্তির কোনো অংশ অবস্থিত, ঐ দলিলের একটি স্মারকলিপি প্রেরণ করিবেবন ।
উপধারা-(২) রেজিস্ট্রার অন্যান্য প্রত্যেক রেজিস্ট্রারের নিকট যাহাদের জিলায় উক্ত সম্পত্তির কোনো অংশ অবস্থিত, উক্ত দলিলের নকলের সহিত ২১ ধারায় উল্লিখিত কোনো নকশা বা পরিকল্পনার (যদি থাকে) একটি নকল ও প্রেরণ করিবেন ।
উপধারা-(৩) ঐ রেজিস্ট্রার অনুরূপ নকল প্রাপ্ত হইলে উহা ১নং বহিতে নথিভূক্ত করিবেন এবং তাঁহার অধীনস্থ সাব-রেজিস্ট্রারদের নিকট যাঁহাদের উপজিলায় উক্ত সম্পত্তির কোনো অংশ অবস্থিত, ঐ নকলের এক-একটি স্মারকলিপি প্রেরণ করিবেন ।
উপধারা-(৪) এই ধারা অনুযায়ী স্মারকলিপি প্রাপ্ত হইয়া প্রত্যেক সাব-রেজিস্ট্রার উহা তাঁহার অফিসে ১নং বহিতে নথিভূক্ত করিবেন ।
ধারা-৬৭ (৩০ ধারার (২) উপধারা অনুযায়ী রেজিস্ট্রিকরণের পরবর্তী পদ্ধতি)
৩০ ধারার (২) উপধারা অনুযায়ী কোনো দলিল রেজিস্ট্রিকৃত হইলে প্রত্যেক রেজিস্ট্রারের নিকট, যাহার জিলায় ঐ দলিল সংশ্লিষ্ট সম্পত্তির কোনো অংশ অবস্থিত, উক্ত দলিলের এবং দলিলে লিখিত কোনো পৃষ্ঠাঙ্কন বা সার্টিফিকেটের নকল প্রেরণ করিতে হইবে এবং রেজিস্ট্রার উহা প্রাপ্ত হইয়া ৬৬ ধারায় (১) উপধারায় নির্ধিরিত পদ্ধতি অনুসরণ করিবেন ।
তথ্যসুত্র : রেজিস্ট্রেশন অাইনের ভাষ্য , লেখক- গাজী শামসুর রহমান।

 

Please follow and like us:

Leave a Reply

Your email address will not be published.