বালৃুরপাড় রিয়েল এস্টেট (ব্লগ)

জমি সংক্রান্ত আইন ও সমস্যর সমাধান এখানেই

হিন্দু আইনে দত্তকের খুটিনাটি

প্রশ্নঃ দত্তক গ্রহণ কি ?

উত্তরঃ অন্য কোন ব্যক্তির পুত্রসন্তানকে হিন্দু আইনের বিধানানুযায়ী পুত্ররুপে গ্রহণ করাকে দত্তক গ্রহণ বলা হয়।

প্রশ্নঃ কে দত্তক নিতে পারে ?

উত্তরঃ

১। দত্তক  গ্রহনকারীকে অবশ্যই আইন নগতভাবে দত্তক গ্রহণের  উপযুক্ত হতে হবে। দত্তক গ্রহণকারীকে  একজন সুস্থ মস্তিস্কসম্পন্ন পুরুষ হতে হবে।

২। দত্তক নেয়ার সময় দত্তক –গ্রহীতার কোন পুত্র, পৌত্র অথবা প্রপৌত্র থাকলে দত্তক নেয়া যায় না।

৩।একজন অবিবাহিত অথবা বিপত্নীক পুরুষ ও দত্তক নিতে পারেন।

৪। বাংলাদেশে হিন্দু পারিবারিক আইনে হিন্দু নারীর দত্তক গ্রহণ ও দত্তক প্রদান করার  ক্ষমতা সীমিত করে রাখা হয়েয়ে। যেমন বিবাহিত স্ত্রী স্বামীর জীবদ্দশায় স্বামীর অনুমকিক্রমে স্বামীর জন্য দত্তক নিতে পারেন কিন্ত নিজের জন্য দত্তক নিতে পারেন না।

আবার  দত্তক প্রদানের ক্ষেত্রেও  একজন নারী তার কোন সন্তানকে স্বামীর অনুমতি ছাড়া দত্তক প্রদান করতে পারেন না।

 

প্রশ্নঃ স্বাভাবিক পুত্র ও দত্তক পুত্রের মধ্যে পার্থক্য কি ?

উত্তরঃ দত্তক নেয়ার ফলে দত্তক পুত্র স্বাবাভিক পুত্রের সব ক্ষমতা লাভ করে অর্থাৎ স্বাবাবিক পুত্র থাকলে যে পরিমাণ সম্পত্তি পেত, সেও তাই পাবে। কিন্ত এখানে একটা ব্যতিক্রম আছে, তা হলো, বাংলাদেশে দত্তক গ্রহতার যদি পরবর্তী সময়ে কোন পুত্রসন্তান জ্ন্মায় তবে দত্তক পুত্রটি  মোট সম্পত্তির ১/৩ অংশ পায়।

প্রশ্নঃ দত্তক গ্রহণের ফলাফল কি ?

উত্তরঃ দত্তককে বলা হয় পুনর্জন্ম। দত্তক পুত্র- দত্তক নেয়ার সময় স্বাভাবিক পুত্রের সব ক্ষমতা লাভ করে থাকে। দত্তক পুত্র তার দত্তক পিতার সম্পত্তিতে পূর্ণ অধীকার লাভ করে। দত্তকের সাথে তার স্বাভাবিক পরিবারের সম্পর্ক ছিন্ন হলেও তার স্বাভাবিক পরিবারের রক্ত সম্পর্কীয় নিষিদ্ধ স্তরের কাউকে সে বিয়ে করতে পারবে না। দত্তকী পুত্রকে এমন মায়ের সন্তান হলে চলবে না, যাকে দত্তক গ্রহণকারী পিতা আইনসম্মতভাবে বিয়ে করতে পারবে না। যেমন- দৌহিত্র, ভাগিনেয়, মাসির পুত্রকে দত্তক নেয়া যায় না।

Please follow and like us:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *